সৈয়দপুরে রেলের আরেকটি কোচ কারখানা হচ্ছে

সৈয়দপুরে রেলের আরেকটি কোচ কারখানা হচ্ছে

মো. আমিরুজ্জামান: বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো সৈয়দপুর রেলকারখানায় নতুন এবং আধুনিক কোচ তৈরির লক্ষ্যে আলাদাভাবে নির্মাণ করা হবে ক্যারেজ কারখানা। এই কারখানায় নতুন কোচ তৈরি করা যাবে, ফলে বিদেশ থেকে আর কোচ আমদানি করতে হবে না।

সৈয়দপুর রেল কারখানার দায়িত্বে থাকা বিভাগীয় তত্ত্বাবধায়ক (ডিএস) ইঞ্জিনিয়ার মো. জয়দুল ইসলাম এই বিষয়ে জানিয়েছেন। ক্যারেজ কারখানা নির্মাণের সার্বিক বিষয়ে জয়দুল ইসলাম বলেন, ক্যারেজ কারখানা ভারতীয় ঋণ সহায়তায় ২০ একর জায়গার ওপর নির্মাণ করা হবে। বর্তমানে এই প্রকল্পের কাজ চলমান রয়েছে।

তিনি বলেন, সৈয়দপুর রেলকারখানায় একটা জায়গা নির্ধারণ করা হয়েছে। সেখানেই এই ক্যারেজ কারখানা নির্মাণ করা হবে। কারখানা নির্মাণ হলে আমরা নিজেরাই সব ধরনের আধুনিক কোচ তৈরি করতে পারব। এর মাধ্যমে সব রুটের ট্রেনের চাহিদা মেটাতে পারব। একই সঙ্গে বিদেশ থেকে কোচ আমদানিও করতে হবে না।

বিভাগীয় এই তত্ত্বাবধায়ক আরো বলেন, দেশেই কোচ তৈরিতে আমাদের সক্ষমতা রয়েছে। পর্যাপ্ত জনবল ও চাহিদা অনুযায়ী বাজেট না থাকার কারণে কাজে কিছুটা সমস্যা হয়। নতুন ক্যারেজ কারখানা নির্মাণ করে চাহিদা অনুযায়ী বাজেট ও লোকবল বাড়ানো হলে কোচ তৈরি ও মেরামতের সক্ষমতা অনেক গুণ বেড়ে যাবে।

সৈয়দপুর কারখানার আধুনিকায়ন প্রসঙ্গে ইঞ্জিনিয়ার জয়দুল ইসলাম বলেন, প্রথমবারের মতো কারখানায় বায়োমেট্রিক হাজিরা সিস্টেম চালু করা হয়েছে।

তাছাড়া কোচ মেরামতের জন্য বিদেশ থেকে আধুনিক মেশিন নিয়ে আসা হচ্ছে। বিদেশে রেলের যে রকম কারখানা থাকে সৈয়দপুর রেলকারখানাকেও সেই অবস্থায় নিয়ে যেতে প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। সেজন্য আমরা একজন কনসালট্যান্ট নিয়োগ দিয়েছি। এর মধ্যেই সম্ভাব্যতা যাচাই রিপোর্ট রেলভবনে পাঠানো হয়েছে। ক্যারেজ কারখানা আধুনিক কোচ নির্মাণের কারখানা তৈরি হয়ে যাবে তখন বিদেশ থেকে কোচ আমদানি করতে হবে না

প্রসঙ্গত, যাত্রীদের আধুনিক রেলসেবা দিতে বিদেশ থেকে আমদানি করা হচ্ছে নতুন নতুন কোচ। আমদানি করা নতুন কোচের মধ্যে রয়েছে ২০০ মিটার গেজ কোচ। আমদানি প্রকল্পের আওতায় কয়েক ধাপে কোচগুলো ইন্দোনেশিয়া থেকে আমদানি করা হচ্ছে।

এর আগে ইন্দোনেশিয়া থেকে ৫০টি ব্রডগেজ কোচ আমদানি করা হয়েছিল। তাছাড়া পাশের দেশ ইন্ডিয়া থেকেও কোচ আমদানি করা হয়েছে। এসব কোচ বিভিন্ন রুটে চলাচল করছে। ইন্দোনেশিয়া থেকে আমদানি করা প্রতিটি মিটার গেজ কোচের মূল্য ছিল ৩.০৩ কোটি টাকা।

সুত্র:ইত্তেফাক, ০৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০


About the Author

RailNewsBD
রেল নিউজ বিডি (Rail News BD) বাংলাদেশের রেলের উপর একটি তথ্য ও সংবাদ ভিত্তিক ওয়েব পোর্টাল।