Articles by RailNewsBD

গাজীপুর-ঢাকা তিনটি ট্রেন সার্ভিস চালু

আ:ছোবাহান জুয়েল: ঢাকা-গাজীপুর সড়কে মানুষের দুর্ভোগ কমাতে ঢাকা-গাজীপুর রেল রুটে তিন জোড়া বিশেষ ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে। গাজীপুরের টঙ্গী থেকে চান্দনা চৌরাস্তা পর্যন্ত মহাসড়কে যানজট অনেক দিন ধরে। এই দুর্ভোগ লাঘবে তিনটি ট্রেন সার্ভিস চালু করেছে…


১০ ইঞ্জিন কেনার অনিয়ম তদন্তে নেমেছে দুদক

ইসমাইলআলী: গত বছর দক্ষিণ কোরিয়ার হুন্দাই রোটেম থেকে ১০টি মিটারগেজ ইঞ্জিন কেনে রেলওয়ে। তবে ইঞ্জিনগুলোয় দরপত্রের শর্তানুসারে বিভিন্ন যন্ত্রাংশ সংযোজন করেনি কোম্পানিটি। এতে ইঞ্জিনগুলোর মূল্য পরিশোধ প্রায় ১০ মাস ধরে ঝুলে আছে। এ নিয়ে শেয়ার বিজে…


ভারত-নেপাল-ভুটান রেল সংযোগে ব্যয় দ্বিগুণ হচ্ছে

মফিজুল সাদিক : ভারতের সঙ্গে রেল সংযোগ স্থাপনের লক্ষ্যে চিলাহাটি এবং চিলাহাটি সীমান্তের মধ্যে ব্রডগেজ রেলপথ নির্মাণ করা হচ্ছে।   মূল প্রকল্পের ব্যয় ছিল ৮০ কোটি ১৬ লাখ ৯৪ হাজার টাকা।নতুন করে প্রকল্পের মোট ব্যয়…


১৩১ বছরের পুরোনো আইনে চলছে বাংলাদেশ রেলওয়ে

ইসমাইলআলী: বাংলাদেশ অঞ্চলে রেলওয়ের কার্যক্রম শুরু হয় ১৮৬২ সালের ১৫ নভেম্বর। সে সময় চুয়াডাঙ্গার দর্শনা থেকে কুষ্টিয়ার জগতী পর্যন্ত ৫৩ দশমিক ১১ কিলোমিটার রেলপথ চালু করা হয়। ১৮৮৫ সালে চালু করা হয় নারায়ণগঞ্জ থেকে ঢাকা পর্যন্ত…


রবিবার থেকে গাজীপুর-টঙ্গী-ঢাকা রুটে বিশেষ ট্রেন চালুর ঘোষণা

নিউজ ডেস্ক:গাজীপুর চৌরাস্তা থেকে এয়ারপোর্ট পর্যন্ত রাস্তায় সাম্প্রতিক সময়ে মানুষের ভোগান্তি চরমে পৌঁছেছে। বর্ষা মৌসুমেও এই রাস্তায় বিআরএ প্রজেক্টের কাজ চলমান থাকায় প্রতিদিন অবর্ণনীয় ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে অফিসগামী মানুষকে। ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে এই রাস্তা দিয়ে…


লকডাউন শেষে ট্রেনের অগ্রিম টিকিটের টাকা ফেরত

নিউজ ডেস্ক: পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়েতে ১১ জুন থেকে ১৪ জুন পর্যন্ত বিক্রয়কৃত অগ্রিম টিকিটের টাকা ফেরত দেয়ার কথা থাকলেও তাতে ব্যর্থ হয় রেল কর্তৃপক্ষ। এই চলমান লকডাউনের ভেতরও যাত্রীরা টিকিট ফেরত দিতে এসে স্টেশনের কাউন্টার থেকে…


বন্ধ হচ্ছে রেলের বাড়তি ব্যয়ের দুই প্রকল্প!

রেলের দুই প্রকল্পে চার হাজার ৮৫০ কোটি টাকা অতিরিক্ত ব্যয় ধরা হয়েছে। এ নিয়ে শেয়ার বিজসহ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে একাধিক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে প্রকল্প দুটির অতিরিক্ত ব্যয় কেটে দেন প্রধানমন্ত্রী। পাশাপাশি ব্যয় কমিয়ে প্রকল্প…


বি-ক্লাসের মর্যাদা হারাচ্ছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া রেলওয়ে স্টেশন

সুজিত সাহা : ব্রাহ্মণবাড়িয়া স্টেশনে গত ২৬ মার্চ ব্যাপক ভাংচুর করে হেফাজতে ইসলাম। নাশকতায় রেলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। দুই মাস ধরে ওই স্টেশনে সার্বিক কার্যক্রম বন্ধ। স্থানীয়দের দাবির মুখে স্টেশনটির কার্যক্রম চালুর উদ্যোগ নিয়েছে রেলওয়ে। তবে বিপুল ক্ষয়ক্ষতির কারণে পূর্বের বি-ক্লাস স্টেশনটি ডি-ক্লাস স্টেশন হিসেবে অপারেশনাল কার্যক্রম শুরু করবে রেলওয়ে। হেফাজতের নাশকতাসংক্রান্ত রেলের তথ্য বলছে, ২৬ মার্চের নাশকতায় রেলের ১০টি খাতের সর্বমোট ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে ২ কোটি ৬২ লাখ ৭১ হাজার ৪০৩ টাকা। এর মধ্যে বাণিজ্যিক বিভাগের ক্ষতি হয়েছে ৫৫ লাখ ৬৮ হাজার টাকা, কম্পিউটার নেটওয়ার্ক সিস্টেমের (সিএনএস) ২৫ লাখ, রেলওয়ে ট্র্যাক (পি ওয়ে) ৭৪ লাখ ৮৪ হাজার, সেতু ২৫ লাখ, সংকেত বিভাগের ৪৩ লাখ ৯৫ হাজার, টেলিকমের ৩ লাখ ৯৫ হাজার, রেডিও ২ লাখ ৮০ হাজার, ক্যারেজ (কোচ ও ওয়াগন) ২০ লাখ, লোকোমোটিভ (ইঞ্জিন) ২ লাখ এবং অন্যান্য বিভাগের ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে ৯ লাখ ৫০ হাজার টাকা। রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, রেলওয়েতে এ, বি, সি, ডি ও হল্ট স্টেশনের মাধ্যমে যাত্রী ওঠানামা ও অপারেশনাল কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। বাংলাদেশ রেলওয়েতে এখন এ-ক্লাস স্টেশন একটিও নেই। আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার না থাকায় বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে এ-ক্লাস স্টেশন কার্যক্রম পরিচালনা করা কঠিন। দেশের অধিকাংশ গুরুত্বপূর্ণ স্টেশনে বি-ক্লাসের। বি-ক্লাস স্টেশনে ট্রেন পরিচালনার প্রায় সব ধরনের কার্যক্রম পরিচালিত হয়। কিন্তু নাশকতার কারণে ব্রাহ্মণবাড়িয়া স্টেশনে সংকেত ও সিগন্যালিং ব্যবস্থা সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে যাওয়ায় এখানে আপাতত বি-ক্লাস স্টেশন হিসেবে চালু করা সম্ভব নয়। এ কারণে শুধু ডি-ক্লাস স্টপেজ দিয়েই যাত্রী ওঠানামা এবং বুকিং সহকারীর মাধ্যমে টিকিট বিক্রি কার্যক্রম চালু করা হবে। অর্থাৎ নাশকতার কারণে রেলওয়ে স্টেশনের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হওয়ায় বি-ক্লাস স্টেশন থেকে ডি-ক্লাস স্টেশনে রূপান্তর হচ্ছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া  রেলওয়ে স্টেশন। জানতে চাইলে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন বণিক বার্তাকে বলেন, নাশকতার কারণে ব্রাহ্মণবাড়িয়া স্টেশনের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এ কারণে আপাতত পূর্বের ন্যায় বি-ক্লাস স্টেশনে নিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। এ স্টেশনের ক্ষয়ক্ষতি স্থাপনা ও যন্ত্রপাতি বসানোর কাজ শুরু হয়েছে। আপাতত ডি-ক্লাস স্টেশন হিসেবে চালু করে শুধু যাত্রী ওঠানামার কার্যক্রম চালু করতে উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। রেলভবনের অনুমোদন পেলে শিগগিরই বন্ধ থাকা ব্রাহ্মণবাড়িয়া স্টেশনের স্টপেজ চালু করা হবে। অপারেশনাল অবকাঠামো সম্পূর্ণ মেরামত না হলে স্টেশনটি বি-ক্লাস হিসেবে চালু করা সম্ভব নয় বলে মনে করছেন তিনি। এদিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া স্টেশনে দুই মাসের অধিক সময় কোনো ট্রেনের স্টপেজ না থাকায় স্থানীয়রা বিক্ষোভ ও আন্দোলন করেছে। কিছুদিন ধরে চলতে থাকা আন্দোলন থেকে স্টপেজ না দেয়া হলে ব্রাহ্মণবাড়িয়া দিয়ে চলাচলরত ট্রেনে ফের ভাংচুরের হুমকি দেয়াও হয়। এ পরিপ্রেক্ষিতে সম্প্রতি সরকারের উচ্চ পর্যায় থেকে পূর্বাঞ্চলের গুরুত্বপূর্ণ স্টেশনে নতুন করে স্টপেজ দিতে প্রক্রিয়া শুরু করেছে। রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্তে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের পরিবহন বিভাগ থেকে ৯ জুন একটি প্রস্তাব রেলভবনে পাঠানো হয়েছে। রেলের এ-সংক্রান্ত নথি সূত্রে জানা গেছে, ব্রাহ্মণবাড়িয়া একটি বি-ক্লাস স্টেশন হওয়ায় প্রতিদিন বিপুল পরিমাণ যাত্রী ওঠানামা করে। ২৬ মার্চের নাশকতায় এ স্টেশনের ভবন, প্যানেল বোর্ড, অফিস কক্ষ ভাংচুর ও আগুন ধরিয়ে দেয়ায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। এতে স্টেশন বিল্ডিংয়ের ব্যাপক ক্ষতি ছাড়াও অপারেটিং কার্যক্রম বন্ধ হয়ে সম্পূর্ণ যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। স্টেশনের অপারেটিং ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ভেঙে পড়ায় সংস্কার কার্যক্রমে দীর্ঘ সময় প্রয়োজন বিধায় ২৭ মার্চ থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া স্টেশনে সব ট্রেনের যাত্রাবিরতি প্রত্যাহার করা হয়। সূত্র:বণিক বার্তা, জুন ১১, ২০২১


বিয়ে করলেন রেলমন্ত্রী, পাত্রী আইনজীবী

বিয়ে করলেন রেলমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজন। পাত্রী দিনাজপুরের বিরামপুরের মেয়ে শাম্মী আকতার মনি। পেশায় তিনি আইনজীবী।  গত শনিবার রাজধানীর উত্তরায় ঘরোয়া পরিবেশে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। দুজনেরই এটি দ্বিতীয় বিয়ে। মনির বড় ভাই মো….


ছাতক সুনামগঞ্জ ও মোহনগঞ্জ রেলপথ স্থাপনে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর চিঠি

নিউজ ডেস্ক: ছাতক, সুনামগঞ্জ ও মোহনগঞ্জের মধ্যে রেলপথ স্থাপন করার দাবি জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন।  রেলমন্ত্রী মো. নূরুল ইসলাম সুজনের কাছে দেওয়া এক চিঠিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ দাবি জানান। রেলমন্ত্রীর উদ্দেশে লেখা চিঠিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী…