শিরোনাম

এক মাসেও চালু হয়নি চবি’র তিন জোড়া শাটল ট্রেন


।। নিউজ ডেস্ক ।।
প্রায় এক মাস ধরে বন্ধ রয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) তিন জোড়া শাটল ট্রেন। তাই চালু থাকা ট্রেনগুলোতে গাদাগাদি করে যাতায়াত করতে হচ্ছে শিক্ষার্থীদের। এরই মধ্যে গত মঙ্গলবার থেকে নতুন শিক্ষাবর্ষের ক্লাস শুরু হওয়ায় ভোগান্তির মাত্রা কয়েকগুণ বেড়েছে। শুধু নবীনদের ক্লাস নয়, সব বিভাগেই চলছে ক্লাস ও পরীক্ষা।

ফলে বাধ্য হয়ে অনেকেই ঝুঁকি নিয়ে শাটল ট্রেনের ছাদে কিংবা দরজায় ঝুলে ক্লাসে আসছেন।
জানা যায়, গত ২৬ জানুয়ারি থেকে মাইলেজ ইস্যুতে কর্মবিরতিতে যান লোকো মাস্টাররা। এতে করে সারা দেশের রেল যোগাযোগ স্থবির হয়ে পড়ে। লোকো মাস্টার সংকটে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন জোড়া শাটল ট্রেন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়। তবে দুই দিনের মাথায় লোকো মাস্টাররা আন্দোলন স্থগিত করলে ফের স্বাভাবিক হয়ে যায় সারা দেশের রেল যোগাযোগ। কিন্তু চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শাটল ট্রেন চালু হয়নি গত এক মাসেও। এর আগে অনিবার্য কারণ দেখিয়ে গত নভেম্বর মাস থেকে বন্ধ রাখা হয় দুই জোড়া ডেমু ট্রেনও।

শিক্ষার্থীরা জানান, আজ তাঁরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের দায়িত্বহীনতার শিকার। এমনিতেই শিক্ষার্থীদের জন্য পর্যাপ্ত ট্রেন নেই। এর মধ্যে তিন জোড়া শাটল ও দুই জোড়া ডেমু ট্রেন বন্ধ থাকায় ভোগান্তির মাত্রা বেড়েছে কয়েক গুণ।

অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী তরিকুল ইসলাম বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন চাইলেই শিক্ষার্থীদের ভোগান্তি কমাতে পারে। কিন্তু তাঁদের পক্ষ থেকে কোনো সদিচ্ছা আমরা দেখতে পাচ্ছি না। শাটলের অভাবে ভোগান্তি অসহনীয় পর্যায়ে চলে গেছে। ’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর ড. শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের সঙ্গে নিয়মিত শিডিউলে ট্রেন চালানোর বিষয়ে কথা বলেছে কর্তৃপক্ষ। খুব শিগগিরই নিয়মিত শিডিউলে ট্রেন চালানোর আশ্বাস দিয়েছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। ’

সূত্রঃ কালের কন্ঠ


About the Author

RailNewsBD
রেল নিউজ বিডি (Rail News BD) বাংলাদেশের রেলের উপর একটি তথ্য ও সংবাদ ভিত্তিক ওয়েব পোর্টাল।