অনুমোদনের আগেই দুই দফায় ৪০৫ কোটি টাকা ব্যয় বৃদ্ধি

৬৫ শতাংশ বেশি দামে ২০০ কোচ কিনবে রেলওয়ে

ইসমাইল আলী:
বিদ্যমান আখাউড়া-সিলেট মিটারগেজ রেলপথ ডুয়েলগেজে উন্নীত করবে রেলওয়ে, যদিও এ-সংক্রান্ত উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনা (ডিপিপি) এখনও অনুমোদিত হয়নি। এরই মধ্যে দুই দফায় প্রায় ৪০৫ কোটি টাকা বেড়ে গেছে প্রকল্প ব্যয়। ২৩৯ দশমিক ১৪ কিলোমিটার রেলপথ ডুয়েলগেজে রূপান্তরে সব মিলিয়ে ব্যয় করা হচ্ছে ১৬ হাজার ১১০ কোটি ৮৪ লাখ টাকা। অথচ এর চেয়ে কম ব্যয়ে নির্মাণ করা হচ্ছে জয়দেবপুর-ঈশ্বরদী ডুয়েলগেজ ডাবল লাইন।

তথ্যমতে, বিদ্যমান আখাউড়া-সিলেট মিটারগেজ রেলপথ ডুয়েলগেজে রূপান্তর করতে দরপত্র আহ্বান করা হয়নি। দরকষাকষির মাধ্যমে চায়না রেলওয়ে কনস্ট্রাকশন কোম্পানিকে কাজটি দেওয়ার জন্য এরই মধ্যে সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করেছে রেলওয়ে। আর জিটুজি ভিত্তিতে এ প্রকল্পে ঋণ দিতে আগ্রহী চীন। দেশটির চায়না রেলওয়ে কনস্ট্রাকশন কোম্পানির সঙ্গে দরকষাকষির ভিত্তিতে প্রকল্পটির ডিপিপি চূড়ান্ত করেছে রেলওয়ে।
প্রকল্পটির আওতায় ২৩৯ দশমিক ১৪ কিলোমিটার মিটারগেজ রেলপথ ডুয়েলগেজে রূপান্তর করা হবে। এর মধ্যে ১৭৬ দশমিক ২৪ কিলোমিটার মূল রেলপথ ও ৬২ দশমিক ৯০ কিলোমিটার লুপ লাইন রয়েছে। এজন্য প্রাথমিকভাবে ব্যয় ধরা হয়েছিল ১৫ হাজার ৭০৫ কোটি ৫৮ লাখ টাকা। পরে তা কিছুটা বেড়ে দাঁড়ায় ১৫ হাজার ৭৭১ কোটি ৯৫ লাখ টাকা। সর্বশেষ এ ব্যয় বেড়ে হয়েছে ১৬ হাজার ১১০ কোটি ৮৪ লাখ টাকা। অর্থাৎ অনুমোদনের আগেই ব্যয় বেড়ে গেছে ৪০৫ কোটি ২৬ লাখ টাকা।

প্রকল্পটি অনুমোদনের জন্য সম্প্রতি পাঠানো হয়েছে পরিকল্পনা কমিশনে। এর পর জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় তা অনুমোদনের জন্য তোলা হবে।

ডিপিপির তথ্যমতে, সারা দেশের সব রেলপথ পর্যায়ক্রমে মিটারগেজ থেকে ডুয়েলগেজে রূপান্তরের নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এরই অংশ হিসেবে সিলেটের সঙ্গে ঢাকা ও চট্টগ্রাম সংযোগ রেলপথ ডুয়েলগেজ করা হবে। এরই মধ্যে কুলাউড়া-শাহবাজপুর রেলপথ ডুয়েলগেজে রূপান্তর করার প্রকল্প নেওয়া হয়েছে। এ অংশটি ট্রান্স-এশিয়ান রেল রুটের অন্তর্ভুক্ত। এতে আগামীতে আখাউড়া-সিলেট রেলপথের গুরুত্ব বাড়বে। এজন্য নতুন প্রকল্প গ্রহণ করা জরুরি। যদিও প্রকল্পটি বাস্তবায়নে কিলোমিটারপ্রতি ব্যয় পড়ছে চলমান ও প্রস্তাবিত অন্যান্য প্রকল্পের চেয়ে অনেক বেশি। এমনকি নতুন রেলপথ নির্মাণে এ প্রকল্পের চেয়ে কম ব্যয় হচ্ছে। এর মধ্যে অন্যতম জয়দেবপুর-ঈশ্বরদী রেলপথ ডুয়েলগেজ ডাবল লাইন রেলপথ নির্মাণ প্রকল্পটি। চীনের অর্থায়নে জিটুজি ভিত্তিতে এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে চায়না রেলওয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং কনস্ট্রাকশন কোম্পানি।
সূত্রমতে, আখাউড়া-সিলেট রেলপথ ডুয়েলগেজে রূপান্তর করতে কিলোমিটারপ্রতি ব্যয় পড়ছে ১১৫ কোটি ৭৯ লাখ টাকা। অথচ জয়দেবপুর-ঈশ্বরদী রেলপথ ডুয়েলগেজ ডাবল লাইন নির্মাণে কিলোমিটারপ্রতি ব্যয় পড়ছে ৭২ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। ওই প্রকল্পটির আওতায় ১৬২ কিলোমিটার মূল রেলপথ ছাড়াও ২৫ কিলোমিটার লুপ লাইন নির্মাণ করা হবে। এছাড়া ১১ দশমিক ২৮ কিলোমিটার রেলপথ পুনর্নির্মাণ করতে হবে। মোট ১৯৭ দশমিক ২৯ কিলোমিটার রেলপথ নির্মাণে ব্যয় হচ্ছে ১৪ হাজার ২৮০ কোটি ৩৮ লাখ টাকা।

এদিকে ভারতের ঋণে কুলাউড়া থেকে শাহবাজপুর পর্যন্ত ৫২ দশমিক ৫৪ কিলোমিটার রেলপথ ডুয়েলগেজে রূপান্তর করা হচ্ছে। এজন্য ব্যয় হবে ৬৭৮ কোটি ৫১ লাখ টাকা। গত বছর ১৫ নভেম্বর এ-সংক্রান্ত চুক্তি সই করা হয়। এতে কিলোমিটারপ্রতি ব্যয় পড়ছে ১২ কোটি ৯১ লাখ টাকা। অর্থাৎ আখাউড়া-সিলেট রেলপথ ডুয়েলগেজে রূপান্তর করতে কিলোমিটারপ্রতি ব্যয় পড়ছে প্রায় ৯ গুণ।
প্রস্তাবিত আখাউড়া-সিলেট ডুয়েলগেজে রূপান্তর করার প্রকল্পটিতে ব্যয় বেশি হওয়ার কারণ জানতে চাইলে বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালক মো. আমজাদ হোসেন শেয়ার বিজকে বলেন, আখাউড়া-সিলেট রুটে বিদ্যমান রেলপথটি পাহাড়ি ও ঢালু। এতে মাটির কাজও বেশ জটিল। আবার বিদ্যমান রেলপথের পাশে অস্থায়ী লাইন করে ট্রেন চলাচল চালু রাখতে হবে। পরে নতুন রেলপথ নির্মাণ করতে হবে। এর পর পুরোনোটা ভেঙে ফেলতে হবে। সব সেতু আবার নির্মাণ করতে হবে। এসব কারণে ব্যয় অনেক বেশি হবে।

যদিও সংশ্লিষ্টরা বলছেন ভিন্ন কথা। তাদের মতে, ডুয়েলগেজে রূপান্তর করা হলেও রেলপথটি সিঙ্গেল লাইনই থাকছে। এতে ট্রেন পরিবহন সক্ষমতা বাড়বে না, অথচ প্রকল্পটি বাস্তবায়নে ব্যয় করা হচ্ছে অনেক বেশি। ফলে সরকারের প্রচুর অর্থ অপচয় হচ্ছে এ প্রকল্পে। যদিও একই ব্যয়ে ডুয়েলগেজ ডাবল লাইন নির্মাণ করা যেত। এতে রেলের যাত্রী ও পণ্য পরিবহন সক্ষমতাও বাড়ত। তা না করায় আগামীতে ডাবল লাইন নির্মাণে পৃথক প্রকল্প নিতে হবে। তাতে আবার সরকারের বিনিয়োগ করতে হবে।
উল্লেখ্য, আখাউড়া-সিলেট ডুয়েলগেজে রূপান্তর প্রকল্পটিতে ১০ হাজার ২৬৭ কোটি ৩৯ লাখ টাকা বা ১৭৫ কোটি ৬১ লাখ ডলার ঋণ দিতে আগ্রহী চীন। বাকি অর্থ সরকারি তহবিল থেকে সরবরাহ করতে হবে।

সুত্র:শেয়ার বিজ, সেপ্টেম্বর ৬, ২০১৮

About the Author

RailNewsBD
রেল নিউজ বিডি (Rail News BD) বাংলাদেশের রেলের উপর একটি তথ্য ও সংবাদ ভিত্তিক ওয়েব পোর্টাল।