ভারতে অভিবাসী শ্রমিকদের ট্রেনের ভাড়া মেটাবে কংগ্রেস, সোনিয়া গান্ধীর ঘোষণা

সনিয়া গাঁধী

ভারতে অভিবাসী শ্রমিক-সহ অন্য রাজ্যে আটকে পড়া অন্যান্যদের জন্য বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা করেছে রেল। কিন্তু যাত্রীদের সেই ট্রেনে উঠতে হবে জমানো পয়সা গুনেই। রেল মন্ত্রণালয় এই নির্দেশ ঘিরে বিতর্ক দানা বেঁধেছিল আগেই। এই আবস্থায় এ বার অভিবাসী শ্রমিকদের পাশে দাঁড়ানোর কথা ঘোষণা করলেন কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গাঁধী । পাশাপাশি বিশেষ ট্রেনের যাত্রীদের থেকে ভাড়া নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকেও দোষারোপ করেন তিনি। তাঁর মতে, ‘‘শ্রমিকরাই দেশের অর্থনীতির মেরুদণ্ড।’’ তাঁদের ‘দেশের আর্থিক বৃদ্ধির দূত’ বলেও ব্যাখ্যা করেছেন সনিয়া।

সোমবার এক বিবৃতিতে ক্ষোভে কেন্দ্রীয় সরকারকে দোষারোপ করেন সনিয়া। বলেছেন, “বিদেশের মাটিতে আটকে পড়া ভারতীয়দের বিনা পয়সায় বিমানে চড়িয়ে দেশে আনার ক্ষেত্রে সরকার তার দায়িত্ববোধ খুঁজে পায়। গুজরাতে একটি প্রকাশ্য কর্মসূচিতে পরিবহণ ও খাবারের জন্য ১০০ কোটি টাকা খরচ করতে পারে সরকার। প্রধানমন্ত্রীর করোনা ফান্ডে ১৫১ কোটি টাকা দেওয়ার মতো উদারতা দেখাতে পারে রেল মন্ত্রণালয় ।’’ অথচ এমন চরম দুর্দশার সময়ে দেশের চালিকাশক্তির গুরুত্বপূর্ণ অংশ ওই শ্রমিকদের কেন ট্রেন ভাড়া দিতে হবে? সেই প্রশ্ন তুলেছেন সনিয়া

সনিয়ার অভিযোগ, লকডাউনের জন্য চার ঘণ্টার নোটিস পর্যন্ত অভিবাসী শ্রমিকদের দেওয়া হয়নি। তার জেরেই এমন একটা ভয়াবহ অবস্থার সাক্ষী হতে হচ্ছে গোটা দেশকে, যা স্বাধীনতার পর প্রথম বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি। তাঁর আরও অভিযোগ, টাকা, খাবার, ওষুধ বা যানবাহন ছাড়াই বহু অভিবাসী শ্রমিক শত শত কিলোমিটার হাঁটতে বাধ্য হয়েছেন। বাড়ি ও প্রিয় জনের কাছে পৌঁছনই তাঁদের এক মাত্র উদ্দেশ্য ছিল। সনিয়া আরও অভিযোগ করেছেন, আজও দেশের বহু অংশে এখনও পর্যন্ত লক্ষ লক্ষ অভিবাসী শ্রমিক দুর্দশার মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন। তাঁর মতে, ওই সব শ্রমিকরা বাড়ি ফিরতে চান। কিন্তু তাঁদের কাছে অর্থ নেই। সনিয়া মনে করছেন, এমন সঙ্কটের মুহূর্তে ওই সব অভিবাসী শ্রমিকদের বাড়ি ফেরাতে কেন্দ্রীয় সরকার ও রেল মন্ত্রণালয়ের ভাড়া নেওয়ার সিদ্ধান্ত বিরক্তিকর। তিনি অভিযোগ করেছেন, অভিবাসী শ্রমিকদের সাহায্য করা নিয়ে কংগ্রেস বার বার দাবি তুললেও তা এড়িয়ে গিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার ও রেল মন্ত্রণালয় ।

কেন্দ্রের বিরুদ্ধে একের পর এক তোপ দেগে প্রেক্ষাপট তৈরি করেছেন সনিয়া। এর পর ঘোষণা করেছেন, দরিদ্র অভিবাসী শ্রমিকদের তাঁদের রেল ভাড়ার খরচ বহন করবে প্রদেশ কংগ্রেস কমিটি। এ জন্য প্রত্যেক রাজ্যের প্রদেশ কংগ্রেসকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করার জন্য নির্দেশও দিয়েছেন তিনি।

অভিবাসী শ্রমিকদের ঘরে ফেরাতে ‘শ্রমিক স্পেশাল’ ট্রেন চালানোর ঘোষণা দিয়েছে রেল। কিন্তু সে জন্য শ্রমিকদের ভাড়া মেটাতে বলা হয়েছিল। সেই টাকা রেল মন্ত্রণালয় রাজ্যের থেকে নেবে বলেও জানিয়ে দিয়েছিল তারা। এই বিজ্ঞপ্তি নিয়ে আগে থেকেই ফুঁসছিল বিরোধী দলগুলি। সোমবার কংগ্রেসের নয়া ঘোষণা সেই বিতর্কে নতুন মাত্রা এনে দিল।

সুত্র:আনন্দবাজার পত্রিকা, ৪ মে, ২০২০

About the Author

RailNewsBD
রেল নিউজ বিডি (Rail News BD) বাংলাদেশের রেলের উপর একটি তথ্য ও সংবাদ ভিত্তিক ওয়েব পোর্টাল।