শিরোনাম

রোদ-বৃষ্টিতে নষ্ট হচ্ছে শতাধিক ওয়াগন

রোদ-বৃষ্টিতে নষ্ট হচ্ছে শতাধিক ওয়াগন

সৈয়দ নোমান: খোলা আকাশের নিচে থেকে নষ্ট হচ্ছে মালবাহী ট্রেনের শতাধিক ওয়াগন। ময়মনসিংহ ট্রেন স্টেশনের উত্তর-পূর্ব অংশে বিশাল জায়গাজুড়ে ফেলে রাখা হয়েছে জাতীয় এ সম্পদ। বছরের পর বছর ওয়াগনগুলো পড়ে থাকলেও যেন দেখার কেউ নেই। রোদ-বৃষ্টিতে মরিচা ধরে এগুলো যেমন ধ্বংস হতে বসেছে, তেমনি সীমানাপ্রাচীর না থাকায় প্রায় রাতেই চুরি ও খোয়া যাচ্ছে রেলের সম্পদ। যে জায়গায় ওয়াগানগুলো রাখা হয়েছে সে স্থানটি দীর্ঘদিন ধরে পরিষ্কার করা হয়নি। ফলে ওই অংশটিতে আগাছা জন্মে ঝোপঝাড়ে রূপ নিয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, রেলের ব্যবহারের অনুপযোগী যেসব ওয়াগন রয়েছে তা একটি স্থানে রেখে সময় বুঝে নিলামে বিক্রি করে দেওয়া হয়। দীর্ঘদিন এগুলো পড়ে থাকলে তা ক্ষয় হতে থাকে এবং মূল্য কমতে থাকে। পড়ে থাকা ওয়াগনগুলো দরপত্রের মাধ্যমে বিক্রি করে দেওয়ার কথা থাকলেও- তা কবে নাগাদ হবে জানা নেই কারও। সরজমিনে দেখা যায়, ময়মনসিংহ রেল স্টেশনের বাঘমারা এলাকার দিকে ঘন জঙ্গলে আচ্ছাদিত বগিগুলোর বেশির ভাগেই মরিচা ধরেছে। আবার ভেঙে পড়ার উপক্রম হয়েছে কোনোটি। অনেক আগেই নষ্ট হয়ে গেছে মূল্যবান সব যন্ত্রাংশ। চুরি যাচ্ছে দরজা-জানালাসহ বিভিন্ন অংশ। এগুলোকে কেন্দ্র করে বসছে ছিনতাইকারী ও মাদক কারবারিদের আড্ডা। স্টেশন সুপার জহুরুল ইসলাম জানান, পরিত্যক্ত এ সব ওয়াগনসহ রেলের যন্ত্রপাতির দেখাশুনার দায়িত্ব প্রধান ট্রেন পরীক্ষক ও প্রকৌশল বিভাগের। এ ব্যাপারে আমার কিছু বলার নেই। প্রধান রেল পরীক্ষক আজিজুল হক বলেন, ‘দরপত্রের মাধ্যমে এ সব বিক্রি করা হবে। তবে কবে নাগাদ তা বলতে পারছি না। বিষয়টি চট্টগ্রাম থেকে দেখভাল করা হয়।

বাংলাদেশ প্রতিদিন,  ২৫ নভেম্বর, ২০১৯


About the Author

RailNewsBD
রেল নিউজ বিডি (Rail News BD) বাংলাদেশের রেলের উপর একটি তথ্য ও সংবাদ ভিত্তিক ওয়েব পোর্টাল।