গোমতী নদীর রেলওয়ে ব্রিজ যেন মরণ ফাঁদ!

গোমতী নদীর রেলওয়ে ব্রিজ যেন মরণ ফাঁদ!

নিউজ ডেস্ক:
ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথের কুমিল্লার আদর্শ সদর উপজেলার পালপাড়া-বানাশুয়া এলাকায় গোমতী নদীর ওপর নির্মিত প্রাচীন রেলওয়ে ব্রিজটি যেনো মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। এ ব্রিজ এলাকায় গত ২২, ২৩ ও ২৫ আগস্ট তিন দিনে স্কুলশিক্ষার্থীসহ চার জনের প্রাণহানি ঘটেছে। কুমিল্লা রেলওয়ে স্টেশনের প্রায় ২ কিলোমিটার উত্তরে অবস্থিত এ ব্রিজে রেললাইনের পাশে ওয়াকওয়ে নেই। এছাড়া ব্রিজের পাশে বাজার ও জনগণের বাসস্থান থাকায় দুর্ঘটনা বাড়ছে বলে মনে করছেন স্থানীয়রা।

কুমিল্লা রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক মিজবাহুল আলম চৌধুরী বলেন, এখানে দুর্ঘটনা আশঙ্কাজনকহারে বাড়ছে। এই ব্রিজ এলাকায় দুর্ঘটনায় গত ২২, ২৩ ও ২৫ আগস্ট স্কুলশিক্ষার্থীসহ চার জন নিহত হয়েছে।

তিনি আরো জানান, এ ব্রিজের আশপাশে গোমতী নদীর তীরে কফিশপ গড়ে উঠেছে। এখানে মানুষের ভিড় হয়। জায়গাটি খোলামেলা হওয়ায় ঐ ব্রিজ এলাকায় অনেক দর্শনার্থী গোমতী নদীর বৈকালিক সৌন্দর্য উপভোগ করতে যায়। এছাড়া কেউ সময় বাঁচাতে, কেউবা শখ করে রেলওয়ে ব্রিজ পাড়ি দেন। ব্রিজের পাশে কোনো ওয়াকওয়ে নেই। ট্রেন আসলে এক পাশে যাওয়ারও কোনো সুযোগ নেই। ব্রিজের দুই মাথায় দুইটি গুরুত্বপূর্ণ সড়ক থাকলেও নেই রেলগেট। ব্রিজের দক্ষিণ দিকটি ৪৫ ডিগ্রি বাঁক রয়েছে। লাইনের পাশে গাছ ও ঝোপঝাড় থাকায় ট্রেন আসলে দেখার সুযোগ নেই। কুমিল্লা রেলওয়ে স্টেশন ২ কিলোমিটার দূরে হওয়ায় ট্রেনের গতিও বেশি থাকে। তাই ব্রিজটি অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। তবে ঝুঁকিপূর্ণ এ ব্রিজের বিষয়ে রেলওয়ে জেলা চট্টগ্রামের পুলিশ সুপারের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে। সমস্যাগুলো চিহ্নিত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করলে দুর্ঘটনা কমে আসবে।

কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মো. আমিনুল ইসলাম টুটুল বলেন, বর্তমানে গোমতী নদীর তীর ভ্রমণপ্রিয় মানুষের জন্য বিনোদনের স্পটে রুপ নিয়েছে। এখানে প্রতিদিনই অসংখ্য মানুষ বেড়াতে আসছে। এই রেলওয়ে ব্রিজ এলাকায় নিরাপত্তাকর্মী না থাকায় মানুষ ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করার সময় দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে। আবার শিশুকিশোররা সেতুর ওপর উঠে লাফালাফি করে। এই সেতুর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা এখন সময়ের দাবি।

রেলওয়ে কুমিল্ল­ার ঊর্ধ্বতন উপসহকারী প্রকৌশলী (পথ) লিয়াকত আলী মজুমদার বলেন, রেললাইন ও ব্রিজে হাঁটা বেআইনি। কিন্তু বাজার, আবাসস্থল সবকিছু রেললাইনের পাশে করা হচ্ছে। এসব কারণে এখানে দুর্ঘটনা বাড়ছে। তবে পুরাতন ও ঝুঁকিপূর্ণ এ রেলওয়ে ব্রিজের স্থলে নতুন ব্রিজ নির্মাণ করা হবে। সেখানে ব্রিজের পাশে ওয়াকওয়ে থাকবে। তখন দুর্ঘটনার আশঙ্কা থাকবে না।

সুত্র:ইত্তেফাক, ০৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯


About the Author

RailNewsBD
রেল নিউজ বিডি (Rail News BD) বাংলাদেশের রেলের উপর একটি তথ্য ও সংবাদ ভিত্তিক ওয়েব পোর্টাল।