যাত্রী চাপ সামলাতে ট্রেনে ২২ অতিরিক্ত বগি

যাত্রী চাপ সামলাতে ট্রেনে ২২ অতিরিক্ত বগি

নিউজ ডেস্ক:

 সারাদেশে বাস ধর্মঘটের কারণে ট্রেনে বেড়েছে যাত্রীদের চাপ। সেই চাপ সামাল দিতে অতিরিক্ত বগির বন্দোবস্ত করেছে রেল কর্তৃপক্ষ। ডিজেলের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে পরিবহন মালিকরা গত শুক্রবার থেকে বাস-ট্রাক চালানো বন্ধ রেখেছে। ভাড়া বাড়ানোর বিষয়ে আজ বৈঠক ডেকেছে বিআরটিএ, তার আগ পর্যন্ত বাস নামছে না সড়কে।

এ পরিস্থিতিতে দূরগামী যাত্রীরা ট্রেনমুখো হওয়ায় চাপ সামলাতে হচ্ছে রেল বিভাগকে। তবে অগ্রিম টিকিট বিক্রি হয়ে যাওয়ায় গতকাল যারা কমলাপুর স্টেশনে গেছেন, তাদের বেশিরভাগ ট্রেনের টিকিট পায়নি।

কভিড মহামারির কারণে এখন দাঁড়িয়ে ভ্রমণের (স্ট্যান্ডিং) টিকিট বিক্রি করছে না রেল কর্তৃপক্ষ। টিকিট ছাড়া কাউকে উঠতেও দিচ্ছে না। ফলে যাত্রীদের পড়তে হচ্ছে বড় দুর্ভোগে।

মাওয়া ঘাট এলাকায় দিনমজুররের কাজ করেন কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার ১২ জন। তারা বাড়ি যাওয়ার জন্য কমলাপুর রেল স্টেশনে এসেছিলেন গতকাল সকাল ৮টায়। দুপুর ১২টাও টিকিট না পেয়ে হতাশ হয়ে পড়েন তারা।

দিনমজুর মো. আসাদুল বলেন, ২২ দিন ধরে মাওয়া ঘাটে কাজ করি। এখন ধর্মঘটের জন্য কাজ নাই। আমরা ১২ জন বাড়ি যাব, কিন্তু সকাল থেকে বসে আছি টিকিট নাই। এখন টেনশনে আছি, কেমনে বাড়ি যাই।

দিনমজুর মঞ্জু মিয়া বলে বলেন, ‘কাম নাই, কাজ নাই এখানে বইসা থাইকা কি না খাইয়া থাকমু।’

মিরপুরের রাজমিস্ত্রির কাজ করেন জামালপুরের দেওয়ানঞ্জের সাইফুল ইসলাম। তিনি বাড়ি যেতে সকাল ৭টা থেকে স্টেশনে দাঁড়িয়ে আছেন টিকিটের আশায়।

তিনি বলেন, বারবার বলে টিকিট নাই। বিকালে লোকাল ট্রেন এলে দেখি টিকিট পাই কি না। যতক্ষণ বসে থাকতে হয় থাকব, বাড়ি যেতে হবে।

নওগাঁর সান্তাহারের খেলনার দোকানি সিরাজুল ইসলাম বৃহস্পতিবার ঢাকার চকবাজারে এসেছিলেন দোকানের পণ্য কিনতে। এক দিন বসে থেকে গতকাল সকালে আসেন রেলস্টেশনে। তিনি জানান, ঢাকায় বসে থেকে তো আর ব্যবসা হবে না। যে পণ্য কিনেছি আর দুই দিন ঢাকায় থাকলে লাভ তো দূরের কথা, ক্ষতি পোষাতে পারব না, তাই ট্রেনে বাড়ি যাওয়ার জন্য আসছি। কিন্তু টিকিট নাই। বসে আছি কোনোভাবে যেতে পারি কি না।

কমলাপুর রেলস্টেশনের ম্যানেজার মাসুদ সারোয়ার বলেন, ধর্মঘট থাকার কারণে ট্রেনে যাত্রীর চাপ বাড়বে এটাই স্বাভাবিক। আমাদের এখানে যাত্রী দ্বিগুণ হয়েছে। তবে টিকিটের বাইরে আমরা কাউকে উঠতে দিচ্ছি না।

যাত্রীদের চাপ কমাতে ‘স্ট্যান্ডিং টিকিট’ চালু করা হবে কি নাÑজানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা সম্পূর্ণ স্বাস্থ্যবিধি মেনে যাত্রীদের উঠাচ্ছি। এখানে স্ট্যান্ডিং টিকিট বিক্রির কোনো নির্দেশনা এখনও আসেনি।

মাসুদ বলেন, আমরা বিভিন্ন ট্রেনে ২২টি অতিরিক্ত বগি যোগ করেছি। প্রয়োজনে আরও যোগ করা হবে।

সূত্র:শেয়ার বিজ, ৭ নভেম্বর ২০২১

About the Author

RailNewsBD
রেল নিউজ বিডি (Rail News BD) বাংলাদেশের রেলের উপর একটি তথ্য ও সংবাদ ভিত্তিক ওয়েব পোর্টাল।