শিরোনাম

ঈশ্বরদী রেলগেটে পাহারা চলছে ব্রিটিশ নিয়মে


।। নিউজ ডেস্ক ।।
বাংলাদেশ রেলওয়েতে পরিবর্তন হয়েছে অনেক কিছুর। নুতুন নুতুন নিয়মে আধুনিক ব্যবস্থা, ট্রেন যাতায়াতের পথে থাকা রেলগেটে আনা হয়েছে ডিজিটাল লক সিস্টেম। তবে এখনো ব্রিটিশ আমলের নিয়মেই চলছে দেশের অন্যতম বড় রেলওয়ে জংশন পাবনার ঈশ্বরদী স্টেশনের প্রধান রেলগেটের কার্যক্রম। সেখানকার বেশ কয়েকটি রেলওয়ে গেট নতুন ডিজিটাল নিয়মের আওতায় এলেও এই রেলগেট এখনো চলছে ব্রিটিশ নিয়মে। রূপপুর প্রকল্পের জন্য নতুন রেললাইন নির্মাণ এবং ট্রেনের সংখ্যা বাড়লেও রেলগেটের সংকট সমাধান হয়নি।

স্থানীয় সূত্র জানায়, ঈশ্বরদী রেলওয়ে গেট দিয়ে প্রতিদিন অন্তত ২৫ থেকে ৩০টি ট্রেন যাতায়াত করে। প্রতিটি ট্রেনের যাওয়া-আসার সময় রেলগেট বন্ধ হলে প্রতিবার ১৫ থেকে ২০ মিনিটের জন্য স্থবির হয়ে পড়ে দু’পাশের যোগাযোগ। এতে করে ক্রমেই প্রকট হচ্ছে জনদুর্ভোগ। চলাচলের এই স্থবিরতার কারণে সৃষ্টি হচ্ছে দীর্ঘ যানজট। এ সময়ে যে কোনো ধরনের জরুরি পরিস্থিতি সামাল দিতে রীতিমতো বেকায়দায় পড়তে হচ্ছে এখানকার মানুষকে। জরুরি প্রয়োজনে অপেক্ষার প্রহর গুনতে হয় ফায়ার সার্ভিস এবং রোগীবাহি অ্যাম্বুলেন্সগুলোকে। স্কুল-কলেজ ও কর্মস্থল থেকে তাড়াহুড়ো করে বের হয়ে প্রায়ই বন্ধ রেলগেটে ঠায় দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। নতুন নতুন ট্রেন চালু হওয়ায় এই দুর্ভোগ আরও বেড়েছে। ব্রিটিশ আমলের নিয়মে রেলগেটের ব্যবস্থাপনা নিয়ন্ত্রিত হওয়ায় এমন ভোগান্তি।

ঈশ্বরদী উপজেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, ঈশ্বরদীবাসীর প্রতিদিনের এই দুর্ভোগ ও অন্যতম প্রধান সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত ‘রেলগেট সমস্যা’র সমাধানকল্পে এরই মধ্যে জাতীয় সংসদে এ এলাকায় একটি ফ্লাইওভার নির্মাণের প্রস্তাব করা হয়েছে।

পাবনা জেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত ও রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব সেলিম রেজা বলেন, রূপপুর প্রকল্পের কারণে ঈশ্বরদীর অনেক কিছুই পরিবর্তন হবে। এক্ষেত্রে ঈশ্বরদীর প্রধান সমস্যা হিসেবে বিবেচিত ঈশ্বরদী রেলগেটে ফ্লাইওভার নির্মাণের পরিকল্পনা রেলের প্রস্তাবনায় আছে। হপাবনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য নুরুজ্জামান বিশ্বাস বলেন, ঈশ্বরদী রেলওয়ে গেটের সংকট সমাধানে জাতীয় সংসদেও আলোচনা হয়েছে। এখানে একটি ফ্লাইওভার নির্মাণের জন্য জাতীয় সংসদে প্রস্তাব উত্থাপন করা হয়েছে।

সূত্রঃ সমকাল


About the Author

RailNewsBD
রেল নিউজ বিডি (Rail News BD) বাংলাদেশের রেলের উপর একটি তথ্য ও সংবাদ ভিত্তিক ওয়েব পোর্টাল।