মিটারগেজ

অনুমোদন পাচ্ছে ব্যয়বহুল ডুয়েলগেজ রূপান্তর প্রকল্প

ইসমাইল আলী : আখাউড়া-সিলেট মিটারগেজ রেলপথটি ডুয়েলগেজে উন্নীত করা হবে। তবে সিঙ্গেল লাইন প্রকল্প হওয়ায় বিদ্যমান রেলপথের পাশে অস্থায়ী মিটারগেজ আরেকটি লাইন নির্মাণ করা হবে। আর বিদ্যমান রেলপথ ডুয়েলগেজে রূপান্তরের পর তা তুলে ফেলা হবে।…


রেলে যাত্রীসেবা উন্নয়নে চাই সংগতিপূর্ণ পদক্ষেপ

সড়কপথে দুর্ঘটনা, যানজট প্রভৃতি বিবেচনায় এবং রেলপথে যাতায়াত অপেক্ষাকৃত আরামদায়ক ও সাশ্রয়ী হওয়ায় ট্রেন ভ্রমণে ঝুঁকছেন যাত্রীরা। এ অবস্থায় রেলপথে যাত্রীসেবার মান বাড়াতে বিভিন্ন উদ্যোগও নিয়েছে সরকার। এতে ট্রেনযাত্রায় মানুষের আস্থা বাড়ছে, বাড়ছে যাত্রীর চাপ।…


৩৬ শতাংশ বাড়তি ব্যয়ে ৭০টি মিটারগেজ ইঞ্জিন কিনছে রেল

নিউজ ডেস্ক: নিজস্ব প্রতিবেদক: যাত্রীচাহিদা মেটাতে অবশেষে ৭০টি মিটারগেজ ইঞ্জিন কিনছে রেলওয়ে। কোরিয়ার হুন্দাই রোটেম থেকে ইঞ্জিনগুলো কেনায় ব্যয় হবে দুই হাজার ৬৫৬ কোটি টাকা, যদিও এ মূল্য প্রকল্প ব্যয়ের চেয়ে সাড়ে ৩৬ শতাংশ বেশি।…


দ্বিগুণ ব্যয়ে ১০০ কোচ মেরামত করবে রেলওয়ে!

ইসমাইল আলী: বর্তমানে রেলওয়ের পূর্বাঞ্চলে ৯৩৩টি মিটারগেজ যাত্রীবাহী কোচ রয়েছে। এরই মধ্যে আয়ুষ্কাল পেরিয়ে গেছে ৪৯২টির। তবে জনবল ঘাটতি ও অপ্রতুল বাজেটের কারণে কোচ মেরামতও ব্যাহত হচ্ছে। এজন্য আয়ুষ্কাল পেরিয়ে যাওয়া বেশকিছু কোচ পুনর্বাসনের (বড়…


বেসরকারি খাতে রেল কোচ মেরামতের তোড়জোড়

বিশেষ সংবাদদাতা : বেসরকারি খাতে ১০০টি মিটারগেজ কোচ মেরামতে একটি প্রকল্প প্রস্তাবনা (ডিপিপি) চূড়ান্ত করেছে রেলওয়ে। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে ৭৯ কোটি ৫১ লাখ টাকা। ১০০টি কোচের মধ্যে ৫০টি চট্টগ্রামের খুলশী থানা ও ৫০টি ঢাকার…


কঠিন শর্তের ঋণে মিটারগেজ ৭০ ইঞ্জিন কিনছে রেলওয়ে

ইসমাইল আলী: যাত্রী পরিবহন সক্ষমতা বৃদ্ধিতে ২০১১ সালে ৭০টি মিটারগেজ ইঞ্জিন কেনার উদ্যোগ নেওয়া হয়। সরবরাহকারীর ঋণে (সাপ্লায়ার্স ক্রেডিট) ইঞ্জিনগুলো কেনায় কয়েক দফা দরপত্র আহবান করা হয়। তবে উপযুক্ত প্রস্তাব না পাওয়ায় তা বাতিল করা…


২০৪৬ সালে দেশে থাকবে না মিটারগেজ রেলপথ (পর্ব-২)

ইসমাইল আলী: দেশের সব মিটার গেজ রেলপথকে ডুয়েল গেজে রূপান্তরে ২০১৩ সালে নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর থেকে মিটার গেজ রেলপথ নির্মাণে কোনো প্রকল্প গ্রহণ করা হয়নি। তবে ঢাকা-চট্টগ্রাম, ঢাকা-সিলেট রেলপথ এখনও মিটার গেজ রয়ে গেছে।…


বার্ধক্যে ধুঁকছে রেল: আয়ুষ্কাল পেরিয়ে গেছে অধিকাংশ ইঞ্জিন-কোচের

ইসমাইল আলী: রেলের উন্নয়নে পৃথক মন্ত্রণালয় গঠন করেছে সরকার। এর পর পাঁচ বছরে ২০ হাজার টাকার বেশি বিনিয়োগ করা হয়। তবে এ সময় রেলের দৃশ্যমান উন্নয়ন হয়নি। এতে একদিকে বাড়েনি রেলপথ, অন্যদিকে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ইঞ্জিন-কোচও…


এক মাসে ইঞ্জিনপ্রতি দাম বাড়ছে চার কোটি টাকা

ইসমাইল আলী: ঘাটতি মেটাতে ৩০টি ব্রডগেজ ইঞ্জিন কিনবে রেলওয়ে। গত মাসে প্রতিটি ইঞ্জিনের দাম ধরা হয়েছিল (ভ্যাট-শুল্ক ছাড়া) ৩১ কোটি ৭৮ লাখ টাকা। এক মাসের ব্যবধানে প্রতিটির দাম বাড়ানো হয়েছে প্রায় চার কোটি টাকা। নতুন…


আমদানিতেই মধু পেয়েছে রেল

পার্থ সারথি দাস ও তোফাজ্জল হোসেন লুতু   : সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানায় ১৮৭০ সালে (তখনকার আসাম-বেঙ্গল রেলওয়ের নিয়ন্ত্রণে ছিল) প্রথম শ্রমিকরা রেলের যাত্রী পরিবহন কোচ উত্পাদন করে। এরপর আরো অনেক সাফল্যের সাক্ষী এ কারখানা।কিন্তু ১৯৯৩…