শিরোনাম

আয় বাড়লেও সেবার মান বাড়েনি

আয় বাড়লেও সেবার মান বাড়েনি

নিউজ ডেস্ক:
জয়পুরহাট রেলস্টেশনে এক বছরের ব্যবধানে আয় বেড়েছে প্রায় দ্বিগুণ। গত এক বছরে এ স্টেশনের আয় ৯ কোটি টাকারও বেশি। তবে আয় বাড়লেও স্টেশনটিতে যাত্রীসেবার মান বাড়েনি বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভিআইপি ওয়েটিং রুম নির্মিত হলেও কোনো আসবাব না থাকায় সেটি বন্ধ রয়েছে। অভিযোগ রয়েছে অপরিচ্ছন্ন প্লাটফর্ম ও অপ্রতুল বসার স্থানেরও।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জানায়, এ স্টেশন দিয়ে বর্তমানে প্রতিদিন আটটি আন্তঃনগরসহ মোট ১০টি ট্রেন ঢাকা, খুলনা, রাজশাহী, দিনাজপুর, লালমনিরহাট ও চিলাহাটিসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে চলাচল করছে। এছাড়া চলাচল করছে মালবাহী ট্রেন। নতুন কোচ সংযোজন, আসন বৃদ্ধি ও শিডিউল বিপর্যয় না হওয়া স্টেশনটিতে বেড়েছে যাত্রীর সংখ্যা। তাছাড়া সময় কম লাগায় বাস যাত্রীরাও এখন ট্রেনের দিকে ঝুঁকছেন। ফলে সব মিলিয়ে এ স্টেশনের আয় বেড়ে গেছে। কিন্তু বাড়েনি স্টেশনটির যাত্রীসেবার মান। বিশেষ করে তিন বছর আগে যে ২ নম্বর প্লাটফর্ম নির্মাণ হয়েছিল, সেটির ওপর ছাউনি দেয়ার ব্যবস্থা নেই। এতে যাত্রীদেরকে রোদে পুড়ে কিংবা বৃষ্টিতে ভিজেই ট্রেনে ওঠানামা করতে হচ্ছে।

কথা হলে বেশ কয়েকজন যাত্রী জানান, ট্রেনের জন্য স্টেশনে অপেক্ষা করতে হয়। কিন্তু প্লাটফর্মে যাত্রীদের বসার জন্য তেমন কোনো ব্যবস্থা নেই। যে কয়টি আসন রয়েছে, তা একেবারেই অপ্রতুল। তাছাড়া ২ নম্বর প্লাটফর্মের যাত্রীছাউনি না থাকায় দীর্ঘদিন ধরে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। তারা জানান, বাসের তুলনায় ট্রেনের যাত্রা আরামদায়ক। এজন্য দিন দিন ট্রেনের যাত্রী বাড়ছে। তবে আরো যাত্রী আকর্ষণে সেবার মান বাড়ানো জরুরি।

এ বিষয়ে জয়পুরহাট রেলস্টেশনের মাস্টার হাবিবুর রহমান হাবিব বলেন, নবনির্মিত ভিআইপি বিশ্রামাগার চালুর জন্য আসবাবপত্র চেয়ে বাংলাদেশ রেলওয়ে পাকশির ডিসিও বরাবর চাহিদাপত্র প্রেরণ করা হয়েছে। আশা করছি এ স্টেশনের সমস্যা সমাধানে কর্তৃপক্ষ দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। এছাড়া এ স্টেশনে জনবল সংকট রয়েছে। তারপরও যাত্রীদের যথাসম্ভব সেবা দেয়ার চেষ্টা অব্যাহত আছে। এ লক্ষ্যে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

সুত্র:বণিক বার্তা, জুলাই ২৭, ২০১৮


About the Author

RailNewsBD
রেল নিউজ বিডি (Rail News BD) বাংলাদেশের রেলের উপর একটি তথ্য ও সংবাদ ভিত্তিক ওয়েব পোর্টাল।