শিরোনাম

ভারতের ট্রেন দুর্ঘটনার তদন্তে বেরিয়ে এলো চাঞ্চল্যকর রহস্য


।। নিউজ ডেস্ক ।।
ভারতের ময়নাগুড়িতে ট্রেন দুর্ঘটনার তদন্তে চাঞ্চল্যকর তথ্য বেরিয়ে এসেছে। এ বিষয় দুর্ঘটনাসংক্রান্ত একটি রিপোর্ট তৈরি করেছে তদন্ত কমিটি।

রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে, দুর্ঘটনাকবলিত ট্রেনের যে ইঞ্জিন ছিল, সেটি প্রতি মাসে পরীক্ষা করা হয়। সেই পরীক্ষা করা হয়নি। কেন হয়নি তা নিয়ে ইতোমধ্যে প্রশ্ন তুলেছে দুর্ঘটনার তদন্তে থাকা কমিশনার অব রেলওয়ে সেফটি। খবর নিউজ এইট্টিনের।

কী করে বোঝা যাবে ট্রেনের ইঞ্জিনের রক্ষণাবেক্ষণসংক্রান্ত পরীক্ষা হয়নি? ১৩ তারিখের দুর্ঘটনাসংক্রান্ত একটি রিপোর্ট তৈরি করেছে আলিপুরদুয়ার ডিভিশন। সেই রিপোর্টের দ্বিতীয় পয়েন্টে উল্লেখ করা হয়েছে ইঞ্জিনের নম্বর।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম নিউজ এইট্টিনের খবরে বলা হয়েছে— IC ও IA কবে করা হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে IC করা হয়েছে গত বছরের ১১ নভেম্বর। IA বাকি আছে চলতি বছরের ৯ জানুয়ারি থেকে। রেলের রিপোর্টে তাই উল্লেখ করা হয়েছে। এই IC ও IA কী? ভারতীয় রেল পরিচালনার জন্য যে বই আছে। তার চ্যাপ্টার থ্রিতে লোকোমোটিভ রক্ষণাবেক্ষণের নিয়মাবলি উল্লেখ করা আছে।

এই চ্যাপ্টারের ৩০৩০২-তে বলা আছে— শিডিউল ইন্সপেকশনের নিয়মকানুন। আর এ পরীক্ষা মোট সাতটি ভাগে বিভক্ত। সেই রুল অনুযায়ী, IA-এর মানে হলো— প্রতি মাসে পরীক্ষা। আর IC পরীক্ষা হলো— প্রতি চার মাসের পরীক্ষা। অর্থাৎ রুল অনুযায়ী, প্রতি মাসে ইঞ্জিনের যে পরীক্ষা হয়, সেই পরীক্ষা করা হয়নি৷ আর দুর্ঘটনার যে রিপোর্ট রেল তৈরি করেছে, সেখানেই পরীক্ষা বা রক্ষণাবেক্ষণ যে করা হয়নি সেটি উল্লেখ করা হয়েছে।

অন্যদিকে এই ট্রেন দুর্ঘটনার তদন্তে কমিশনার অফ রেলওয়ে সেফটির সামনে এসেছে একটি ভাইরাল ভিডিও। সিসিটিভি ফুটেজের সেই ভিডিওতে একটি লেভেল ক্রসিং দেখা যাচ্ছে। ১৩ জানুয়ারি, রাত ২টা ৪ মিনিটের ভিডিও এটি। ১২২ নম্বর এই লেভেল ক্রসিংয়ের ফুটেজ অনুযায়ী, যে ট্রেনটিকে দেখা যাচ্ছে সেটি দুর্ঘটনাগ্রস্ত বিকানের-গুয়াহাটি এক্সপ্রেসের ছবি।

টাইম অনুযায়ী, ট্রেনটি সেই সময় দীনদয়াল উপাধ্যায়-পটনা সেকশনের মধ্যে থাকা উচিত। সূত্র অনুযায়ী, এই ভিডিও আসলে চুনার স্টেশনের। এই ভিডিওতে লাইনের ছবি দেখলেই বোঝা যাবে, ট্রেন আসার আগে আর ট্রেন চলে যাওয়ার পরের ছবি তাদের ভাবাচ্ছে। দুর্ঘটনাস্থলে যে ভাবে স্লিপারের মাঝের অংশ ভাঙা ছিল, সে রকমই আঘাতের চিহ্ন ট্রেন চলে যাওয়ার পরে ওই লেভেল ক্রসিংয়ে স্লিপারের অংশে দেখা গেছে। ফলে ধরে নেওয়া হচ্ছে ইঞ্জিনের ট্র্যাকশন মোটরের সমস্যা দীর্ঘ সময় ধরে চলছিল। তার জেরেই এই ট্রেন দুর্ঘটনা কিনা তা খতিয়ে দেখছে কমিশনার অফ রেলওয়ে সেফটি।

সূত্রঃ যুগান্তর


About the Author

RailNewsBD
রেল নিউজ বিডি (Rail News BD) বাংলাদেশের রেলের উপর একটি তথ্য ও সংবাদ ভিত্তিক ওয়েব পোর্টাল।