দেশে প্রথম স্থাপন করা হচ্ছে অটোমেটিক ট্রেন ওয়াশিং প্লান্ট

দেশে প্রথম স্থাপন করা হচ্ছে অটোমেটিক ট্রেন ওয়াশিং প্লান্ট

মশিউর রহমান খান :

দেশে প্রথমবারের মতো অটোমেটিক ট্রেন ওয়াশিং প্লান্ট স্থাপন করছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। প্রাথমিকভাবে গুরুত্ব বিবেচনায় ঢাকার কমলাপুরে ও রাজশাহীতে দুটি ট্রেন ওয়াশিং প্লান্ট স্থাপনের কাজ পুরোদমে এগিয়ে চলেছে। বর্তমানে প্লান্টের প্রায় ৮০ ভাগের বেশি কাজ সম্পন্ন হয়েছে। ২০২০ সালের জানুয়ারি মাসেই এসব আধুনিক ওয়াশিং প্লান্টে সম্পূর্ণ অটোমেটিক মেশিনে কোন প্রকার হাতের ছোঁয়া ছাড়াই একসঙ্গে তিনটি ট্রেনের বগি মাত্র কয়েক মিনিটে ঝকঝকে তকতকে করে ওয়াশ করার কাজ শুরু হবে। বর্তমানে ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে প্রতিটি ট্রেনের বগি পরিষ্কার করতে ৪০ মিনিট থেকে ১ ঘণ্টা পর্যন্ত সময় ব্যয় হলেও নতুন প্রযুক্তিতে মাত্র ৫ থেকে সর্বোচ্চ ১০ মিনিটের মধ্যেই একটি ওয়াশিং প্লান্টে একত্রে তিনটি ট্রেনের বগির বাইরের অংশ পরিষ্কার করা সম্ভব হবে। এতে করে ট্রেন পরিষ্কারে অতিরিক্ত অর্থ ব্যয় হ্রাস, সময় বাঁচানোর পাশাপাশি সঠিক সময়ে ট্রেন পরিষ্কার করে ট্রেনের সিডিউল বিপর্যয় রোধের মাধ্যমে অধিক সংখ্যায় কাস্টমার সার্ভিস পালনে বিশেষ ভূমিকা রাখা যাবে। একইসঙ্গে দূর থেকে প্রতিটি ট্রেনের বাহ্যিক সৌন্দর্য বর্তমানের তুলনায় বৃদ্ধি পাবে বলে রেলসূত্রে জানা গেছে।

জানা গেছে, বর্তমানে দেশের গুরুত্বপূর্ণ ১৩টি রেলস্টেশনে ওয়াশফিল্ডে প্রতিদিন ট্রেনের ট্রিপ শেষে নিয়মিত ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে হাত ও ব্রাশ দিয়ে ঘষে ঘষে ট্রেন পরিষ্কারের কাজ করা হয়। ফলে এসব বগি সম্পূর্ণ পরিষ্কার করা মোটেও সম্ভব হয়ে উঠে না। যার ফলে প্রতিটি ট্রেন তার গন্তব্যে পৌঁছার পর তা পরিষ্কারে অধিক সময় ব্যয় হওয়ায় ট্রেন পরিচালনায়ও অনেক ক্ষেত্রে বিলম্ব ঘটতে দেখা যায়। এ দুটি প্ল্যান্ট স্থাপনের পর পরবর্তীতে সকল ওয়াশফিল্ডে প্ল্যান্ট স্থাপনের সরকারের বিশেষ পরিকল্পনা রয়েছে প্রকল্প সূত্রে জানা গেছে। মোট চারটি ধাপে এসব প্ল্যান্টে ট্রেন ওয়াশ করা হবে।

রেলসূত্র জানায়, উন্নত বিশ্বের প্রায় সব দেশে এমনকি পার্শ্ববর্তী দেশেও এসব অটোমেটিক ট্রেন ওয়াশিং প্ল্যান্ট থাকলেও সময়ের সঙ্গে সঙ্গে চাহিদার পরিবর্তন হওয়ায় দেশে চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যেই এসব ওয়াশিং প্ল্যান্ট স্থাপন করা হবে। যা জানুয়ারি থেকে কাজ শুরু করবে। ট্রেন ওয়াশ করার পর প্রতিটি ট্রেনের বাইরের অংশে কোন প্রকার ময়লা, দাগের চিহ্ন এমনকি ট্রেনের ছাদে বা বগির গায়ে কোন প্রকার ময়লা কারো চোখে পড়বে না। ফলে বাহ্যিক দিক দিয়ে প্রতিটি ট্রেন দেখাবে ঝকঝকে তকতকে ও দৃষ্টিনন্দন। এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) অর্থায়নে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

প্রতিটি ট্রেন নির্দিষ্ট ট্রিপ শেষেই পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার স্বার্থে এসব ওয়াশিং প্ল্যান্টে প্রতিটি ট্রেন সম্পূর্ণ অটোমেটিক পদ্ধতিতে ট্রেন পরিষ্কার করা হবে। অত্যাধুনিক সুবিধা-সম্পন্ন এই ওয়াশিং প্ল্যান্টে অতি দ্রুততার সঙ্গে একটি ট্রেন পরিষ্কার করা সম্ভব হবে। ফলে কোন ট্রেন পরিষ্কারের জন্য যাত্রীদের আর অযথা বসে থাকতে হবে না। যার ফলে যাত্রী দুর্ভোগ অনেকাংশে লাঘব হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

রেলসূত্র জানায়, বর্তমানে প্রতিটি ট্রেন সম্পূর্ণ ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে হাত দিয়ে ঢাকা ও রাজশাহীতে অবস্থিত ওয়াশফিল্ডে ট্রেন পরিষ্কার করা হয়। এতে প্রতিটি ট্রেন পরিষ্কারে ন্যূনতম দেড় ঘণ্টা বা অতিরিক্ত বগিসম্পন্ন ট্রেনের ক্ষেত্রে ২ থেকে আড়াই ঘণ্টা সময় ব্যয় হয়। এতে করে অনেক সময় স্বাভাবিক সময়ে নির্দিষ্ট গন্তব্যে ট্রেন ছেড়ে যেতে বিলম্ব দেখা দেয়। এছাড়া ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে ট্রেন ওয়াশে ব্যয়ও অনেক বেশি হয়। এর তুলনায় অনেক কম সময়ে ও কম খরচে প্রতিটি ট্রেন ওয়াশ করা সম্ভব হবে। যার ফলে বগিতে নোংরা আবর্জনা লেগে থাকবে না ও সময় সাশ্রয় হওয়ায় প্রতিটি ট্রিপই সঠিক সময়ে গন্তব্যের উদ্দেশ্যে রওনা দিতে পারবে বলে জানা গেছে।

রেলসূত্র জানায়, রেল মন্ত্রণালয়ের ২শ ৫০টি ব্রডগেজ ও মিটারগেজ গাড়ি ক্রয় প্রকল্পের অধীনে এসব প্ল্যান্ট স্থাপন করা হচ্ছে। আমেরিকা থেকে ক্রয় করা এসব প্ল্যান্ট স্থাপনে চুক্তিমূল্য ধরা হয়েছে মোট ৩২ কোটি টাকা। এছাড়া সরকারী নিয়মানুযায়ী ১৫ ভাগ ভ্যাট সংযুক্ত হবে। যার পরিমাণ প্রায় ১ কোটি টাকা। বর্তমানে ঢাকার কমলাপুরের প্ল্যান্টের যন্ত্রাংশ স্থাপনের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে রয়েছে বলে প্রকল্প সূত্রে জানা গেছে। এছাড়া রাজশাহীর প্ল্যান্টের কাজ প্রায় ৮০ ভাগের বেশি কাজ সম্পন্ন করেছে। বেশ কিছু সূত্র জানায়, ডিসেম্বর নাগাদ পুরো প্ল্যান্ট স্থাপনের পর পরীক্ষামূলকভাবে ট্রেনের বগি পরিষ্কারের কাজ শুরু হবে। পরবর্তীতে জানুয়ারি থেকেই পুরোদমে চালু করা হবে ট্রেন ওয়াশের কাজ।

সুত্র:জনকন্ঠ ৩০ অক্টোবর ২০১৯


About the Author

RailNewsBD
রেল নিউজ বিডি (Rail News BD) বাংলাদেশের রেলের উপর একটি তথ্য ও সংবাদ ভিত্তিক ওয়েব পোর্টাল।