চললো স্বপ্নের মেট্রোরেল, মুগ্ধ হয়ে দেখল রাজধানীবাসী


।। নিউজ ডেস্ক ।।
বাংলাদেশে উড়াল পথে ভায়াডাক্টের ওপর দিয়ে প্রথমবারের মতো পরীক্ষামূলকভাবে চললো মেট্রো রেল। রাজধানী ঢাকার কিছু এলাকার মানুষ মুগ্ধ হয়ে দেখল মেট্রো রেলের চলাচল।

রবিবার (২৯ আগস্ট) মেট্রো রেলে আনুষ্ঠানিক পরীক্ষামূলকভাবে চালিয়ে দেখানো জন্যই শুক্রবার (২৭ আগস্ট) সকালে ট্রেনটি ছয়টি বগি নিয়ে উত্তরার দিয়াবাড়ী ডিপো থেকে মিরপুরের পল্লবী পর্যন্ত চারটি স্টেশনে চলাচল করে।

ঢাকা মাস ট্রানজিট কম্পানি লিমিটেড (ডিএমটিসিএল) সূত্র জানায়, রবিবার উত্তরার দিয়াবাড়ী থেকে মিরপুর পর্যন্ত এই ‘ট্রায়াল রান’ হবে। সেদিন সকাল ১০টায় এমআরটি-৬ ডিপোতে এই পরীক্ষামূলক পরিচালনা ও পরীক্ষণের উদ্বোধন করবেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

গতকাল উত্তরার দিয়াবাড়ী ডিপো থেকে মিরপুর ১২ নম্বর স্টেশন পর্যন্ত ভায়াডাক্টের ওপর দিয়ে প্রথমবারের মতো মেট্রো রেল চালিয়ে দেখা হয়। গতকাল সকাল ৬টা থেকে ১০টা পর্যন্ত ট্রেনটি চলাচল করে। এই ট্রেন চলাচলের ছবি ও ভিডিও এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

তথ্য-প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহেমদ পলক একটি টেলিভিশনে প্রচারিত সেই ভিডিও শেয়ার করে লিখেছেন, ‘এখনো পারফরম্যান্স টেস্ট শুরু হয়নি মেট্রো রেলের। তার আগে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতির অংশ হিসেবে মেট্রো রেল ভায়াডাক্টের ওপরে চলাচল করেছে।’

এ বিষয়ে মেট্রো রেলের প্রকল্প পরিচালক এ বি এম আরিফুর রহমান বলেন, উত্তরার ডিপো থেকে পল্লবী পর্যন্ত নিরাপদে মেট্রো রেল চালানো হয়েছে, কোনো সমস্যা হয়নি। পথের স্টেশনগুলোতে থামিয়ে দেখা হয়েছে, সব কিছু ঠিক আছে। আশা করি ২৯ আগস্ট পরীক্ষামূলক পরিচালনায় কোনো সমস্যা হবে না।’

এর আগে গত ১১ মে উত্তরার দিয়াবাড়ীতে মেট্রো রেলের ডিপোর ভেতরে প্রথমবারের মতো গণমাধ্যমের সামনে এই বৈদ্যুতিক ট্রেন চালিয়ে দেখানো হয়। বর্তমানে উত্তরা দিয়াবাড়ী মেট্রো রেলের ডিপোতে দুই সেটের মোট ১২টি কোচ পৌঁছেছে, যার প্রথম সেটের ছয়টি ২১ এপ্রিল এবং দ্বিতীয় সেটের আরো ছয়টি কোচ ১ জুন ঢাকা পৌঁছয়।

ডিএমটিসিএলের অধীনে ঢাকা ও এর আশপাশে মেট্রো রেলের ছয়টি লাইন নির্মাণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এর প্রথমটি লাইন-৬। এই প্রকল্পে ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় ২২ হাজার কোটি টাকা। মেট্রো রেল লাইন-৬-এর জন্য ২০১৭ সালে জাপানের কাওয়াসাকি-মিত্সুবিশি কনসোর্টিয়ামকে ২৪ সেট ট্রেন নির্মাণের দায়িত্ব দেওয়া হয়। দুই পাশে দুটি ইঞ্জিন আর চারটি কোচের সমন্বয়ে ট্রেনের সেটগুলো তৈরি হচ্ছে জাপানে।

ডিএমটিসিএলের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, এমআরটি লাইন-৬ প্রকল্পের উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত ২০.১০ কিলোমিটার লাইনের সমন্বিত অগ্রগতি হয়েছে ৬৬.৪৯ শতাংশ। আর উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত প্রায় ১২ কিলোমিটার লাইনের অগ্রগতি ৮৮.১৮ শতাংশ। ২০২৪ সালের মধ্যে পুরো প্রকল্প শেষ করার লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও ২০২২ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত শেষ করার নতুন লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে।

এর আগে ২০২১ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত শেষ করার লক্ষ্য ছিল। কিন্তু কভিড-১৯-এর প্রভাবে প্রকল্প বাস্তবায়নে নেতিবাচক প্রভাব পড়ায় মেয়াদ এক বছর বাড়ানো হয়।

সূত্রঃ কালের কণ্ঠ


About the Author

RailNewsBD
রেল নিউজ বিডি (Rail News BD) বাংলাদেশের রেলের উপর একটি তথ্য ও সংবাদ ভিত্তিক ওয়েব পোর্টাল।