কৃষিপণ্য ও পার্সেল পরিবহনে বুধবার থেকে বিশেষ ট্রেন

কৃষিপণ্য ও পার্সেল পরিবহনে বুধবার থেকে বিশেষ ট্রেন

নিউজ ডেস্ক: লকডাউনে সব ধরনের পণ্যবাহী ট্রেন চলাচলের পাশাপাশি বুধবার থেকে কৃষিজাত পণ্য ও পার্সেল পরিবহনে চার জোড়া বিশেষ ট্রেন চলাচল করবে বলে জানিয়েছেন রেলপথমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন। গতকাল রেলভবনে ‘লকডাউন এবং কভিডকালীন পণ্যবাহী ও পার্সেল ট্রেন পরিচালনা’ বিষয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন তিনি। কভিড-১৯ বেড়ে যাওয়ায় পরিস্থিতি সামাল দিতে আজ থেকে এক সপ্তাহ কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছে সরকার।

সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে গত ৫ এপ্রিল থেকে দেশে নানা বিধিনিষেধ চলছে। তখন থেকে যাত্রীবাহী ট্রেন বন্ধ রেখে শুধু জরুরি পণ্য পরিবহন করছে রেলওয়ে। রেলমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের কৃষকরা যাতে মালামাল পরিবহনের ক্ষেত্রে রেলের সুবিধা নিতে পারে, সেজন্য গতবারও ম্যাংগো ট্রেন, লাগেজ ভ্যান ও কোরবানির সময় পশুবাহী ট্রেন চালানো হয়েছিল। এবার পরিকল্পিতভাবে এসব পার্সেল ট্রেন চালানো হবে।’

তিনি জানান, ঢাকা-সিলেট (প্রতিদিন), সিলেট-ঢাকা (প্রতিদিন), চট্টগ্রাম-সরিষাবাড়ী (প্রতিদিন), সরিষাবাড়ী-চট্টগ্রাম (প্রতিদিন), খুলনা-চিলহাটি (শনি, সোম ও বুধবার), চিলহাটি-খুলনা (রবি, মঙ্গল ও বৃহস্পতিবার), পঞ্চগড়-ঢাকা (শনি, সোম ও বুধবার) এবং ঢাকা-পঞ্চগড় (রবি, মঙ্গল ও বৃহস্পতিবার) পার্সেল ট্রেন চলাচল করবে।

বুধবার (আজ) থেকে এ ট্রেনগুলোর চলাচল শুরু হবে বলে জানিয়ে রেলমন্ত্রী বলেন, ‘প্রাথমিকভাবে লকডাউনের জন্য এগুলো চালু করা হয়েছে, পরবর্তীকালে প্রয়োজনের ভিত্তিতে এ ট্রেন চালু রাখার পরিকল্পনা রয়েছে এবং এর পরিধি বৃদ্ধি করব।’

মন্ত্রী জানান, বিশেষ পার্সেল ট্রেনে কৃষিজাত পণ্য, যেমন শাকসবজি, দেশীয় ফলমূলসহ অন্য কৃষিপণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে মূল ভাড়ার ওপর ২৫ শতাংশ রেয়াতি ও অন্যসব চার্জ রহিত থাকবে।

ঢাকা-সিলেট রুটের ৩১৯ কিলোমিটার দূরত্বের জন্য কেজিপ্রতি এক টাকা ১১ পয়সা ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে। ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে ৩৪৬ কিলোমিটারের জন্য কেজিপ্রতি ভাড়া হবে এক টাকা ১৭ পয়সা। চট্টগ্রাম-সরিষাবাড়ী ৪৬৯ কিলোমিটারের জন্য প্রতি কেজি এক টাকা ৩৫ পয়সা, চট্টগ্রাম-সিলেট রুটে ৩৯০ কিলোমিটারের জন্য এক টাকা ৩০ পয়সা, খুলনা-চিলাহাটি রুটে ৪৯০ কিলোমিটারের জন্য এক টাকা ৩৬ পয়সা এবং পঞ্চগড়-ঢাকা রুটে ৫৯৩ কিলোমিটারের জন্য এক টাকা ৫৬ পয়সা ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে।

ভারত থেকে রেলে পণ্য পরিবহন বাড়ছে বলে জানিয়ে রেল সচিব সেলিম রেজা বলেন, মার্চে ১৪০টি ট্রেনে ভারত থেকে তিন লাখ ১৯ হাজার টন মালামাল আনা হয়েছে। এসব পণ্যর মধ্যে চাল ও গম বেশি। রেলওয়ের মহাপরিচালক ধীরেন্দ্রনাথ মজুমদার, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশন) সরদার শাহাদাত আলীসহ অন্য কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

অন্যদিকে চলমান লকডাউনে পণ্য পরিবহনে যেকোনো সমস্যা সমাধানে নিয়ন্ত্রণ কক্ষ চালু করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

দেশের যেকোনো প্রান্তে পণ্য পরিবহনের সমস্যার ক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রণ কক্ষের মোবাইল ফোন নম্বরগুলোয় যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। গতকাল বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, নিত্যপণ্য উৎপাদন, আমদানি, পরিবহন ও বিপণনে কোনো সমস্যা হলে সহযোগিতার জন্য এসব নম্বরে যোগাযোগ করা যাবে। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের কন্ট্রোল সেল ০১৭১২১৬৮৯১৭, ০১৭৩৮১৯৫১০৬ ও ০১৭৫৬১৭৩৫৬০।

সূত্র:শেয়ার বিজ, এপ্রিল ১৪, ২০২১

About the Author

RailNewsBD
রেল নিউজ বিডি (Rail News BD) বাংলাদেশের রেলের উপর একটি তথ্য ও সংবাদ ভিত্তিক ওয়েব পোর্টাল।